বুধবার ২১শে অক্টোবর ২০২০ |

কাতারে কোথায় গাড়ি থামালে কত জরিমানা

কাতার |  বুধবার ৭ই অক্টোবর ২০২০ দুপুর ১২:১৮:১২
কাতারে

কাতারে থাকাকালে অনেকেই ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু এ দেশের ট্রাফিক আইন সম্পর্কে সচেতন না থাকায় কখনো কখনো সামান্য ভুলে আর্থিক জরিমানার মুখোমুখি হন অনেকে।

বিশেষ করে কোথাও গাড়ি রাখার জায়গা না পেলে অনেকে নিজের গাড়িটি এমন জায়গায় পার্ক করেন, যেটি গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য অনুমোদিত নয়।

এ ধরণের গাড়ি পার্কিংয়ে টহলরত ট্রাফিক পুলিশের নজরে পড়লে ৩০০ রিয়াল জরিমানা করা হতে পারে। 

সেইসাথে ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে কেটে নেওয়া হতে পারে তিন পয়েন্ট।

আবার অনেকে রাস্তার পাশে নির্মিত ফুটপাতের উপর গাড়ি পার্ক করেন। এটিও কাতারের ট্রাফিক আইনে অবৈধ ও দন্ডনীয় অপরাধ। 

এই অপরাধের জন্যও ৩০০ রিয়াল জরিমানা এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে তিন পয়েন্ট কেটে নেওয়া হতে পারে।

এমনিভাবে কোনো ব্রিজে বা সড়কে এমন জায়গায় গাড়ি নিয়ে অপেক্ষা করা অবৈধ, যেখানে গাড়ি থামিয়ে রাখার অনুমতি নেই।

এই ধরণের কর্মকান্ডের জন্য অভিযুক্ত হলে চালককে ৩০০ রিয়াল পর্যন্ত জরিমানা করা হতে পারে। পাশাপাশি ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে তিন পয়েন্ট কেটে নেওয়া হবে।

সড়কে এমন কোথাও গাড়ি থামানো বা রাখা যাবে না, যেখানে গাড়ি রাখার ফলে সড়কে স্থাপিত ট্রাফিক সাইনবোর্ড ঢাকা পড়ে যায়, অথবা যেখানে গাড়ি রাখার কারণে ট্রাফিক সিগন্যাল আড়ালে পড়ে যায়, এ ধরণের কাজও ট্রাফিক আইনে অবৈধ। 

এর দায়ে অভিযুক্ত চালককে ৩০০ রিয়াল জরিমানা এবং তার ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে তিন পয়েন্ট কেটে নেওয়া হবে।

এছাড়া এমন আরও বেশকিছু বিষয় আছে, যেগুলো হয়তো চালকের দৃষ্টিতে স্বাভাবিক, কিন্তু মূলত এতে অন্যের ক্ষতিসাধন হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়।

ফলে ট্রাফিক আইনে এ ধরণের কর্মকান্ড সবসময় অবৈধ ও এর ফলে আর্থিক জরিমানা ও শাস্তির মুখোমুখি হতে পারেন অভিযুক্ত চালক।

সড়কের এক পাশে যখন গাড়ি রাখা থাকে, তখন ওই গাড়ির পাশে আরেকটি গাড়ি পার্ক করা অবৈধ। তেমনিভাবে প্রতিবন্ধীদের জন্য নির্ধারিত জায়গায় গাড়ি রাখা দন্ডনীয় অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। 

পাশাপাশি পুলিশের গাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স বা যে কোনো বিশেষ কাজের জন্য নির্ধারিত জায়গায় গাড়ি রাখাও ট্রাফিক আইন লঙ্ঘন হিসেবে ধরা হয়ে থাকে। 

অপরাধভেদে ভিন্ন ভিন্ন অঙ্কের আর্থিক জরিমানা ও ড্রাইভিং লাইসেন্স থেকে পয়েন্ট কেটে নেওয়ার শাস্তির মুখোমুখি হতে হয় এ ধরণের দোষী ব্যক্তিদের।

কাতারে জনসংখ্যা বাড়ার সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে যানবাহনের সংখ্যা। ফলে সড়কে আইন শৃঙ্খলা ঠিক রাখতে একদিকে যেমন বিপুলসংখ্যক রাডার বসানো হচ্ছে, তেমনিভাবে টহলরত ট্রাফিক টিমের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। 

ফলে ট্রাফিক আইনের খুঁটিনাটি সম্পর্কে সচেতন থাকা আমাদের সবার জন্য অবশ্য কর্তব্য।  

কাতারের সব খবর পেতে আজই লাইক দিয়ে যুক্ত থাকুন এই পেজে

কাতারের আরও খবর

গালফবাংলায় প্রকাশিত যে কোনো খবর কপি করা অনৈতিক কাজ। এটি করা থেকে বিরত থাকুন। গালফবাংলার ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন।
খবর বা বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: editorgulfbangla@gmail.com

কাতার,দোহা,কাতারের খবর,দোহার খবর,প্রবাসী,প্রবাস,কাতারের নিউজ,কাতারের সংবাদ,কাতারের বাংলা খবর,কাতারের বাংলা সংবাদ,প্রবাসীদের খবর,কাতার প্রবাসীদের খবর,Qatar,Doha,Qatar Bangla News,Doha News,Qatar Bangla

কাতার

সংশ্লিষ্ট খবর